২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

Table of Contents

ব্লাকমেইল করে কিশোরী অশালীন ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার নামে ধর্ষণ!

সুমন পল্লব, হাটহাজারী:: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অশালীন ছবি আপলোড এবং ব্যক্তিগত মোবাইলে ছবি ধারন করে ব্লাকমেইল মাধ্যমে জোরপূর্বক ধর্ষণের দায়ে ১২ বছরের এক কিশোরী উদ্ধার ও মোঃ সুজন মিয়া (২৫) নামে ধর্ষণকারীকে আটক করেছে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম।

শনিবার রাতে সিলেট রেলওয়ে থানা এলাকায় থেকে কিশোরী সহ আসামীকে উদ্ধার করা হয়।

আটককৃত আসামী সুনামগন্জ জেলার জগন্নাথপুর থানার ঐহারদাশ এলাকার মোঃ দিলু মিয়ার পুত্র।

র‌্যাবের সুত্রে জানা যায়,  কিশোরীর মামা মোস্তাফিজুর রহমান র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামে অভিযোগ করেন যে, তার ভাগ্নি ভিকটিম সপ্তম শ্রেণীতে পড়াশোনা করছে।  গত ৩১ডিসেম্বর বাসা হতে আবাসিক ডি বøক এর উদ্দেশ্যে বাহির হয়ে পরবর্তীতে আর ফিরে আসেনি। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ভিকটিমকে উদ্ধারের লক্ষ্যে ব্যপক গোয়েন্দা নজরদারী, আধুনিক ও তথ্য প্রযুুক্তি ব্যবহার অব্যাহত রাখে। নজরদারীর এক পর্যায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম জানতে পারে যে, ভিকটিম সিলেট রেলওয়ে থানা এলাকায় অবস্থান করছে।

উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ১ জানুয়ারি ঐ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামী মোঃ সুজন মিয়াকে আটক করা হয় এবং  ভিকটিমকে উদ্ধার করে। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে কৌশলে ভিকটিমের মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করে হোয়াটসঅ্যাপ, ম্যাসেঞ্জারে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন প্রকার অশালীন ম্যাসেজের মাধ্যমে বয়সান্তের সুযোগ নিয়ে ভিকটিমকে মন্ত্রমুগ্ধ ও বশীভূত করে।

এছাড়াও এক পর্যায়ে আসামী কৌশলে ভিকটিমের কিছু ছবি তার মোবাইলে সংগ্রহ পূর্বক সংরক্ষণ করে। আসামী ভিকটিমকে তার সাথে সিলেটে নিয়ে বান্ধবী তানিয়ার বাসায় একত্রে থাকার আইডিয়া দেয় এবং এতে যদি রাজি না হয় তাহলে আসামীর কাছে থাকা ভিকটিমের ছবি ফেসবুকে আপলোড করে দিবে বলে বিভিন্ন রকম ভয় ভীতি দেখায়। গত ৩১ ডিসেম্বর ভিকটিমকে বিভিন্ন প্রলোভন ও ভয় দেখিয়ে অসৎ উদ্দেশ্যে অপহরণ করে সিলেটে নিয়ে যায়।

র‌্যাব-৭ সিনিয়ার সহঃপরিচালক (মিডিয়া) জানান উদ্ধারকৃত ভিকটিম ও গ্রেফতারকৃত আসামীর সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Posts